অনলাইন আয়ের ব্লগ

কমেন্ট মার্কেটিং অনলাইনে পরিচিতি,সুনাম ও সম্পর্ক তৈরি করে

কমেন্ট মার্কেটিং অনেকের কাছে একেবারে পরিচিত নয়। অনেকে হয়তো ব্লগ কমেণ্টিং কিংবা ফোরাম প্রোমোশনের কথা শুনে থাকবেন। ব্লগ কমেণ্টিং কিংবা ফোরাম প্রোমোশনের সাথে কমেণ্ট মার্কেটিংয়ের যেমন কিছুটা মিল আছে তেমনি উদ্দেশ্য আর তা সম্পাদনের ধরনের কারনে পার্থক্য আছে।

ফোরাম প্রমোশনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ব্যবসা তাদের অফার ফোরাম বা গ্রুপে প্রচার করে থাকেন। ব্লগ কমেন্টিং অনেকে কেবল সংযুক্তি বা লিঙ্ক পাওয়ার উদ্দ্যেশ্য করে থাকেন।

কমেন্ট মার্কেটিংয়ের উদ্দেশ্য হচ্ছে বিভিন্ন অনলাইন কমিউনিটিতে মন্তব্য করার মাধ্যমে পরোক্ষভাবে ব্যবসার প্রচার করা।

অনলাইন কমিউনিটি

নির্দিস্ট কিছু বিষয়কে কেন্দ্র করে সোশ্যাল গ্রুপ , ফোরাম , ব্লগ, ব্যক্তিগত সোশ্যাল প্রোফাইল, ফ্যান পেইজ , বিজনেস পেইজ তৈরি হয় । নির্দিস্ট ঐ বিষয়ে যারা আগ্রহীরা তারাই এই গ্রুপেগুলোর সদস্য, ব্লগের পাঠক বা পেইজের অনুসারী হয়। তৈরি হয় বিষয় ভিত্তিক ভার্চুয়্যাল কমিউনিটি।

উদাহরণঃ

WebHostingTalk.com – হোস্টিং ব্যবসায়ী, অনলাইন ব্যবসায়ী, লেখক , মার্কেটার সহ যারা ওয়েবহোস্টিংয়ের সাথে জড়িত তারা এখানকার সদস্য।
http://moz.com/blog এস ই ও বিশেষজ্ঞ, অনলাইন ব্যবসায়ী, লেখক ,এস ই ও সফটওয়্যার তৈরি কারী প্রতিষ্ঠান সহ যারা এস ই বিষয়ে আগ্রহী তারা এই ব্লগের পাঠক।

ধরা যাক, আপনার ওয়েব ডিজাইন কোম্পানী হোস্টিং সাইটের ডিজাইনে অভিজ্ঞ ও দক্ষ। আপনি WebHostingTalk.com ফোরামের ডিজাইন বিষয়ক আলোচনায় অংশগ্রহণ করলেন।ফোরামের অন্য সদস্যরা তখন আপনার করা মন্তব্য পড়বে।আপনার সম্পর্কে কেউ কেউ জানার জন্য আপনার প্রোফাইল পড়বে। আপনার প্রোফাইলে যোগ করা আপনার সাইটটিতে যাবে।হয়তো আপনার সাইটকে বুকমার্ক করবে, নিউজলেটারে নিবন্ধন করবে, ফ্যান পেইজ লাইক করবে কিংবা টুইটারে অনুসরণ করবে। আবার ফোরামের সদস্যদের আপনি সাহায্য করার কারনে তারা আপনার সাথে ব্যক্তিগত সম্পর্ক তৈরি করবে।

এভাবে নিয়মিত ভাবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করলে ফোরামের সদস্যদের মাঝে আপনি ও আপনার ব্যবসা পরিচিতি লাভ করবে। ফোরামের মত প্রতিটি সোশ্যাল সাইটেই কমেন্টের মাধ্যমে অনলাইনে প্রচারের সুযোগ আছে।ব্যবসার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি উপাদান এই কমেন্ট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে অর্জন করা যায়। যেমনঃ

পরিচিতি
সুনাম
সম্পর্ক
পরিচিতি
সোশ্যাল ফোরামের বিভিন্ন আলোচায় অংশ গ্রহন করে, ব্লগে , ফ্যান পেইজে, ব্যক্তিগত প্রোফাইলে মন্তব্য করে বা মতামত দিয়ে গ্রুপের অন্য সদস্যদের কাছে নিজেকে সহজেই পরিচিতি করে তোলা যায়।এই পরিচিতি পাওয়া যায় কোন প্রকার ব্যয় করা ছাড়া। ব্যক্তির এই পরিচিতির সাথে তার ব্যবসা অন্যদের কাছে পরিচিত পায়।

সুনাম
আপনি যদি বিভিন্ন আলোচনায় অন্যদের সাহায্য করেন এবং জ্ঞানগর্ভ মতামত দেন তাহলে অন্য সদস্যরা আপনাকে ঐ বিষয়ে জ্ঞানী,দক্ষ ও অভিজ্ঞ মনে করবেন। তাদের নিকট আপনার বিশেজ্ঞ ভাবমূর্তি তৈরি হবে। আপনাকে আস্থাবান মনে করবে। বিশ্বাস করবে। এতে করে আপনার ব্যবসার প্রচার ও প্রসারে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

সম্পর্ক
ধীরে ধীরে গ্রুপের অন্য সদস্য , পেইজের অন্য অনুসারী, ব্লগের অন্য পাঠকদের সাথে আপনার সম্পর্ক তৈরি হবে। যারা আপনার উত্তর , মন্তব্য বা মতামত থেকে সরাসরি উপকৃত হবে তাদের অনেকের সাথে ব্যক্তিগত সম্পর্ক তৈরি হবে। আপনার প্রকাশ করা লেখা , বিশেষ অফার , সোশ্যাল পোস্ট ইত্যাদি তারা সোশ্যাল মিডিয়া ও পরিচিত জনের সাথে শেয়ার করবে। ব্যবসার প্রচারে তারা সাহায্য করবে। আপনার প্রতি আস্থা ও আপনার ভাবমূর্তির জন্য তাদের প্রয়োজন হয় এমন কিছু আপনার প্রতিষ্ঠান থেকে কিনবে।

গুরুত্ব
কার্যকরারীতার দিক থেকে বিবেচনা করলে যেকোন আকারের ব্যবসার জন্য কমেন্ট মার্কেটিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ক্ষুদ্র কিংবা ব্যক্তি কেন্দ্রিক ব্যবসার জন্য কমেন্ট মার্কেটিং খুবই কার্যকরী কৌশল। ক্ষুদ্র কিংবা ব্যক্তি কেন্দ্রিক ব্যবসা শুরুতে প্রচারের জন্য অর্থ হয় থাকে না কিংবা খুব কম থাকে। প্রচার করতে পারে না বলে বিক্রিও কম অথবা হয় না। কমেন্ট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে গড়ে তোলা পরিচিতি,সুনাম ও সম্পর্ক ছোট ব্যবসায়িদের বিনা খরচে অন্যদের টার্গেটেড ক্রেতাদের নিকট পৌছাতে সাহায্য করে।

ফরেক্স ফোরাম পোষ্টিং করে ইনকাম করুন

আপনাকে যা করতে হবেঃ
আপনার সাইটের বিষয় বস্তু সম্পর্কিত ব্লগ, ফোরাম, গ্রুপ, বিশেষজ্ঞ ও অন্যান্য ব্যবসা বা সাইটের সোশ্যাল প্রোফাইলের তালিকা করুন। সেগুলো নিয়মিত পড়ুন। অন্যরা কেমন করে অংশ গ্রহন করছে সেই বিষয়টি পর্যালোচনা করুন। আপনিও অংশ গ্রহণ করা শুরু করেন।

আপনি নিজেকে সরাসরি প্রচার করবেন না। অন্যদের সাহায্য করার মাধ্যমে , আলোচনায় অবদান রাখার মাধ্যমে নিজের পরিচিতি , সুনাম ও সম্পর্ক তৈরি করবেন। কমেন্ট মার্কেটিং পরোক্ষ প্রচার কৌশল।

প্রতিটি গ্রুপ, প্রোফাইল ,ব্লগ ও সোশ্যাল সাইট আলাদা। প্রতিটির নিজস্ব নিয়ম নীতি আছে।সেগুলো মেনে চলেই আপনাকে অংশ গ্রহন করতে হবে।

চর্চার মাধ্যমে অভ্যাস তৈরিঃ
আমি যখন অনলাইনে ব্যবসা শুরু করি কোন গ্রুপে বা ব্লগে মন্তব্য করতে এক ধরনের ভীতি কাজ করতো। লিখতে চাইলেও লিখতে পারতাম না। লিখে নিজেকে প্রকাশ করার ক্ষেত্রে একধরনের অক্ষমতা কাজ করতো।

অনলাইনে ব্যবসা করতে গেলে লেখার অভ্যাস থাকা জরুরী। তাই সুযোগ পেলেই নিজেকে প্রকাশ করতে শুরু করলাম। ইংরেজী ভাষায় পরিচালিত সোশ্যাল গ্রুপ বা ব্লগে অংশ গ্রহণ করা অনেক সময় অনেকর জন্য কঠিন। তাই বাংলায় নিজেকে প্রকাশ করা শুরু করলাম।

আমার সোশ্যাল প্রোফাইল, ব্লগ ও সোশ্যাল গ্রুপ গুলোতে আমি বাংলায় লেখি। যখনি সুযোগ পাই সোশ্যাল মিডিয়াতে অন্যদের স্টাটাসে বাংলায় মন্তব্য করি।বাংলাদেশে আমার যতটুকু পরিচিতি তা আমি এই কমেন্ট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমেই অর্জন করেছি। বেড়েছে আমার পরিচিত, সুনাম, ব্যবসা বানিজ্যের সুযোগ আর লেখার দক্ষতা।

নিজের ভাষায় প্রকাশ করা অনেক সহজ। যা আমরা অন্যকে বলি তা লিখার মাধ্যমে প্রকাশের মাধ্যমেই লিখার অভ্যাস তৈরি করার সহজ উপায়। যেখানে লিখার ভুল শুদ্ধের চেয়ে তথ্যের বিষয়টা গুরুত্বপূর্ণ সেই মাধ্যম গুলো দিয়ে শুরু করতে পারেন।আপনার প্রথম লক্ষ্য থাকবে যে কোন বিষয়ে আলোচনায় অংশ গ্রহনের অভ্যাস তৈরি করা । দ্বিতীয়ত ধীরে ধীরে লিখার মান , শুদ্ধতা চর্চা করা।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটা পার্ট সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

চ্যালেঞ্জ নিতে হবেঃ
কিছুটা চ্যালেঞ্জ নিজের সাথেই নিতে হবে। অনেক সময় দেখা যাবে নিজের বক্তব্য বা মন্তব্য আছে কিন্তু লিখা আসছে না। এই সব ক্ষেত্রে অবশ্যই কিছু একটা লিখেতে হবে এমন একটা মনোভাব আপনাকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক লেখক হিসাবে প্রস্তুত করে তুলবে।

কমেন্ট মার্কেটিং নিয়ে পরিশেষে বলতে চাই অনলাইনে প্রচারের জন্য খুবই কার্যকারী ও সাশ্রয়ী একটা কৌশল । নিয়মিত চর্চার মাধ্যমে নিজেকে কমেন্ট মার্কেটিংয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। শুরু করতে হবে এখনি।

2020 সালের সোশ্যাল মিডিয়া কতজন অ্যাক্টিভ ইউজার আছে?

আপনার মন্তব্য
পাঠক,কমেন্ট মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা আপনি যদি অনুধাবন করে থাকেন। তাহলে আপনি নিশ্চয় বুঝেছেন কমেন্ট মার্কেটিং একটা চর্চার বিষয়। যখনি সুযোগ পাবেন তখনি কমেন্ট করার চেস্টা করা উচিত। এই নিবন্ধন বিষয়ে আপনার মতামত, জিজ্ঞাসা অথবা যুক্তা করার ছিলো থাকলে মন্তব্যের মাধ্যমে জানিয়ে দিন। শুরু হোক আপনার কমেন্ট মার্কেটিং ।

মূল লেখক: আবুল কাশেম

Exit mobile version